কালবৈশাখীর ঝড়ে সড়কের দুর্ভোগ রাজধানীর কয়েকটি এলাকার

 

রোববার সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবস শেষে করে মানুষ যখন ঘরে ফেরার পথে, রাজপথের ওই ব্যস্ততার মধ্যেই সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে ঘণ্টায় ৮৩ কিলোমিটারের বেশি গতির বাতাস নিয়ে আঘাত হানে কালবৈশাখী।

ঝড়ে ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় গাছপালা উপড়ে রাস্তায় পড়ে যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটেছে। বৈদ্যুতিক তার ছিঁড়ে এবং খুঁটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহও বিঘ্নিত হয়েছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

“বেশ কিছু গাছ পড়েছে। কয়েকটি জায়গায় বিদ্যুতের খুঁটিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যে খবর পাচ্ছি তাতে এগুলো পরিষ্কার করতে গভীর রাত হয়ে যাবে।”

“তবে নগরীর বিভিন্ন সড়কে যানজট লেগে গেছে। জায়গামত পৌঁছাতে সময় লাগছে।”

মহাখালীতে একটি নির্মাণাধীন ভবনের পাশে বিলবোর্ড ভেঙে পড়েছে একটি গাড়ির ওপরে। এতে গাড়িটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গাছের ডাল ভেঙে পড়ায় সড়কে যান চলাচলও ব্যাহত হচ্ছে।

ডেসকোর সঞ্চালন লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় গুলশান এলাকাতেও প্রায় দুই ঘণ্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকে বলে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানানো হয়।

এদিকে ঝড়ের পর বিভিন্ন সড়কে সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট। পড়ে থাকা গাছ সরানোর কাজ চলায় ধানমণ্ডিতে আবাহনী মাঠের সামনে, তেজগাঁয়ে বিজি প্রেস সংলগ্ন এলাকা এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে যান চলাচল রাত ৯টার সময়ও এক প্রকার বন্ধ ছিল।

মহাখালী থেকে গুলশানে আসা-যাওয়ার দুই দিকেই ছিল তীব্র যানজট। বনানী থেকে মহাখালীর পথেও দেখা যায় যানবাহনের দীর্ঘ সারি।

“অনেকক্ষণ ঝড় বৃষ্টি হওয়ায় চলাচল বন্ধ ছিল। ঝড় থামার পর সবাই একসঙ্গে বের হয়েছে। তাছাড়া বিভিন্ন এলাকায় গাড় পড়ে যান চলাচল ব্যাহত হয়েছে। এ কারণে সড়কে প্রেসার আছে। তবে আশা করছি ক্লিয়ার হয়ে যাবে।”

 

 

আত্মহারা সেঁজুতি প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে চিঠির জবাব পেয়ে

 

প্রিয় সেঁজুতি,

তোমার চিঠি পেয়েছি। আমার স্নেহ এবং শুভেচ্ছা গ্রহণ কর। আশা করি তুমি বাবা, মা এবং বন্ধুদের নিয়ে খুব ভাল আছো। তোমার চিঠি আমি কয়েকবার পড়েছি। তোমার দাদুর জন্য দোয়া করেছি। তোমার দাদুকে মহান আল্লাহ রাব্বুল আ’লামীন বেহেশত নসীব করুন। তুমি মনোযোগ দিয়ে লেখাপড়া করবে এবং নিয়মিত স্কুলে যাবে। বাবা-মার কথা শুনবে এবং বড় হয়ে দেশের সেবা করবে। তোমার জন্য একটি ছবি পাঠালাম। অনেক অনেক দোয়া আর আদর রইল।                                                  

                                                                          শেখ হাসিনা

 

শিশুর হাত গেল এবার ট্রাকের চাপায়

 

রোববার শেরপুর উপজেলার শেরুয়া এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। আহত শিশুটিকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত সুমি বেগম (৮) শেরপুরের শাহবন্দেগী ইউনিয়নের ফুলতলা দক্ষিণপাড়ার বাসিন্দা দোকান কর্মচারী দুলাল মিয়া এবং গৃহকর্মী মরিয়ম বেগমের মেয়ে। স্থানীয় ব্র্যক স্কুলের প্রথম শ্রেণিতে পড়ে সে।

মা মরিয়ম বেগম সাংবাদিকদের জানান, দুপুরে সুমি মায়ের সঙ্গে বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিল। শেরুয়া এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় হোঁচট খেয়ে রাস্তায় পড়ে যায়।

“ওই সময় একটি দ্রুতগামী ট্রাকের নিচে পড়ে তার ডান হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।”

তার বাম হাতের দুটি আঙুল বিচ্ছিন্ন হয়েছে এবং কপাল ও মুখে আঘাত পেয়েছে বলেও মরিয়ম বেগম জানান।

মরিয়ম জানান, দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয় লোকজন সুমিকে ওই এলাকার দুবলাগাড়ী স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎকরা প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। পরে বিকাল ৪টার দিকে তাকে শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানাস্তর করা হয়।

মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. নির্মলেন্দু চৌধুরী বলেন, শিশুটির অবস্থা আশঙ্কামুক্ত নয়। মাথার আঘাত গুরুতর।

“একটি হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে, আরেক হাতের আঙুল ভেঙে গেছে। এখানে ভর্তি করার সময় শিশুটির জ্ঞান ছিল না। পরে জ্ঞান ফিরেছে।”

ক্ষত স্থানগুলো ড্রেসিং করে দেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, “২৪ ঘণ্টা পার না হলে কিছুই বলা যাবে না। এ সময় অতিবাহিত হলে শিশুটির অস্ত্রোপচার করা হবে।”

সার্জারি বিভাগের ওয়ার্ড বয় মুক্তার হোসেন বলেন, শিশুটিকে হাসপাতাল থেকে ওষুধসহ সবকিছু বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে। শিশুটির সঙ্গে আসা মা মরিয়ম প্রায় বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন।

বগুড়া শহরের ছিলিমপুর টাউন ফাঁড়ি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (টিএসআই) আব্দুল আজিজ মন্ডল বলেন, বিকালে শিশুটিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় এনে সার্জারি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে।

কয়েকদিন আগে দুই বাসের সংঘর্ষে ডান হারানোর পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রাজধানীর তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেন।

এরপর শুক্রবার রাজধানীর বনানীতে বিআরটিসির দ্বিতল বাসের নিচে পড়ে ডান পা হারিয়ে পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন রোজিনা নামের এক তরুণী।

গত ১৬ এপ্রিল ঢাকার পলাশীতে কর্মরত অবস্থায় নীলক্ষেত থেকে উল্টোপথে আসা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একটি বাস থামানোর সময় ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক দেলোয়ার হোসেনের বাম পায়ের উপর দিয়ে চলে যায়। ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসার পর এ্যাপোলো হাসপাতাল ঘুরে এখন তার রয়েছেন স্কয়ার হাসপাতালে।

ডিএসইতে সূচক পতন

 রোববার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন শুরুর পর কিছুক্ষণ সূচক ঊর্ধ্বগতিতে থাকলেও দিন শেষে নেতিবাচক অবস্থায় লেনদেন শেষ হয়।

চার্জ নির্ধারণ ইউএসএসডি মোবাইল ব্যাংকিংয়ে

জন্য ইউএসএসডি (আনস্ট্রাকচারড সাপ্লিমেন্টারি সার্ভিস ডাটা) কোড ডায়ালের সেশনভিত্তিক মূল্য নির্ধারণের সিদ্ধান্তে সম্মত হয়েছে মোবাইল ফোন অপারেটর এবং মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো।
তবে এ মূল্য নির্ধারণের ফলে গ্রাহকদের অর্থ লেনদেনের ব্যয় বাড়বে না।
সোমবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সঙ্গে মোবাইল ফোন অপারেটর, মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানসহ টেলিযোগাযোগ খাত সংশ্নিষ্টদের বৈঠকে এ ব্যাপারে সব পক্ষ সম্মত হয়। বৈঠক সংশ্নিষ্ট দায়িত্বশীল সূত্রে এ তথ্য পাওয়া গেছে।
সূত্র জানায়, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে মোবাইল নেটওয়ার্ক ব্যবহারের জন্য প্রতি ৯০ সেকেন্ডে এক সেশন হিসাবে ৮৫ পয়সা ইউএসএসডি মূল্য পরিশোধ করতে হবে। এক্ষেত্রে দুটি এসএমএসও এই মূল্যের মধ্যেই অন্তর্ভুক্ত থাকবে। অর্থ লেনদেন ছাড়া শুধু অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্স চেক করার ক্ষেত্রে এই মূল্য হবে ৪০ পয়সা। এ ব্যাপারে বিটিআরসি শিগগিরই একটি নির্দেশনা জারি করবে বলেও জানা গেছে।
বর্তমানে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে টাকা পাঠানোর জন্য ৫ টাকা হারে চার্জ দিতে হয়। এ ছাড়া ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে প্রতি হাজারে ১৮ টাকা ৫০ পয়সা চার্জ দিতে হয়। এই অর্থের ৯৩ শতাংশ মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান এবং তাদের এজেন্টরা পায়। বাকি ৭ শতাংশ পায় মোবাইল অপারেটররা। তবে নেটওয়ার্কে ইউএসএসডি ডায়ালের জন্য কোনো চার্জ ছিল না। সূত্র আরও জানায়, ইউএসএসডি চার্জ আরোপ হলেও গ্রাহকদের অর্থ লেনদেনে ব্যয় বাড়বে না।

ইসরায়েলের গুলিতে নিহত আরও ৪ ফিলিস্তিনি

ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে দেশটির গাজা উপত্যকায় চলছে বিক্ষোভ। চার সপ্তাহে গড়ানো এই বিক্ষোভে ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে নিহত হয়েছে আরও চার ফিলিস্তিনি। এ ছাড়া নতুন করে আহত হয়েছে কমপক্ষে ৭২৯ জন।

স্থানীয় সময় শুক্রবার ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার খবরে বলা হয়, শুক্রবার বিক্ষোভে অংশ নিয়ে গাজার ইসরায়েল সীমান্তে জমায়েত হয় দশ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি। তাদের ওপর ইসরায়েলি সেনারা গুলি ও কাঁদানে গ্যাস ছুড়লে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

গুলিতে নিহত ফিলিস্তিনিরা হলেন—মুহাম্মদ ইব্রাহিম আইয়ুব (১৫), আহমেদ রাশেদ (২৪), আহমেদ আবু আকিল (২৫) ও সাদ আবদুল মাজিদ আবদুল-আল আবু তাহা (২৯)।

শুক্রবারের এই ঘটনার মধ্য দিয়ে বিক্ষোভে নিহত ফিলিস্তিনিদের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৩৯ জনে। এ ছাড়া চার হাজারের বেশি মানুষ আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

১৯৪৮ সালে আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের পর ফিলিস্তিনের অনেক অংশ দখল করে নেয় ইসরায়েল। ফলে সেখানে আটকা পড়ে অনেক ফিলিস্তিনি। এর পর থেকেই তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার দাবিতে বিক্ষোভ করছে ফিলিস্তিনিরা। গত মাসে নতুন করে বিক্ষোভটি শুরু হয়। ১৫ মে পর্যন্ত চলবে এ বিক্ষোভ।

সরকার খালেদার সুচিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় সব করবে

কারাগারে বন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার জন্য সরকার প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

তিনি বলেছেন, অসুস্থ খালেদা জিয়াকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির দাবি জানিয়েছেন বিএনপি নেতারা। আমি তাদের বলেছি, তার (খালেদা জিয়া) সুচিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থাই নেওয়া হয়েছে। আগামীতেও যা যা করার প্রয়োজন তার সবই করা হবে, তবে তা হবে জেল কোড অনুযায়ী ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শে।

রোববার (২২ এপ্রিল) সচিবালয়ে বিএনপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কারাগারের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ ও জেলকোড অনুযায়ী আলোচেনা দরকার। তাদের সঙ্গে কথা বলে এ সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

‘আর চিকিৎসার জন্য জেল কোডের বাইরেও যদি কোনো সিদ্ধান্ত নিতে হয় তাহলে আমরা আলোচনা করে তা নেবো।’

এর আগে নজরুল ইসলাম খান ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিএনপি নেতাদের নিয়ে বৈঠকে

বিএনপির দুই নেতা আজ সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন। আজ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান ও ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজউদ্দিন আহমেদ সচিবালয়ে আসেন। তার কিছু পরেই আসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।
বৈঠক চলাকালেই সেখানে এসে উপস্থিত হন কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইফতেখার উদ্দিন।

ধারণা করা হচ্ছে, কারাগারে আটক খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিষয়াদি নিয়ে কথা বলার জন্য বিএনপির দুই নেতা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন।

বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে ইন্ডিয়ার কোনো মাথা ব্যথা নেই : কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে ইন্ডিয়ার কোনো মাথা ব্যথা নেই। ক্ষমতার উৎস জনগণ। জনগণ কাউকে ভোট দিলে কোনো দেশ এসে অন্য কাউকে ক্ষমতায় বসিয়ে দিতে পারবে না।

শনিবার (২১এপ্রিল) বিকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। ভারতে ক্ষমতাসীন বিজেপি আমন্ত্রণে ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে দলের একটি প্রতিনিধি দল রোববার নয়া দিল্লি সফরে যাচ্ছেন। এই সফর সম্পর্কে তুলে ধরতেই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
বাংলাদেশের নির্বাচনে ভারতের প্রভাব নিয়ে রাজনৈতিক মহলে নানা কথা আছে। সুনির্দিষ্ট তথ্য না থাকলেও বহু মানুষের মধ্যে এই ধারণা প্রকট যে, প্রতিবেশী বৃহৎ এই দেশটির সুনজর রাজনৈতিক দলগুলোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আর আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলের এই সফরকে ঘিরে ঔৎসুক্য রয়েছে রাজনৈতিক অঙ্গনে।

রোববার ভারত যাওয়ার পর রাতে বাংলাদেশি দূতাবাসের আয়োজনে নৈশ্যভোজে অংশ নেবেন আওয়ামী লীগের নেতারা। পরদিন সকালে ভারতের লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজন সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও পার্লামেন্ট অধিবেশন পরিদর্শন করবে প্রতিনিধি দলটি। পরে ভারতীয় জনতা পার্টির নেতা এম জে আকবরের দেওয়া মধ্যাহ্ন ভোটে অংশ নেবেন আওয়ামী লীগ নেতারা। বিকালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন তারা।

পরে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা শেষে নৈশভোজে অংশে নেবে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল। তিন দিনের এই সফর শেষে ২৪ এপ্রিল ঢাকার উদ্দেশে নয়া দিল্লি ছাড়বে প্রতিনিধি দলটি।

গণমাধ্যম কর্মীদের এক প্রশ্নে কাদের বলেন, ‘আমাদের ক্ষমতার উৎস বাংলাদেশের জনগণ। বিজেপি এসে আমাদের জন্য ভোট চাইবে না, চাইতেও পারবে না।’
‘ইন্ডিয়ান ডেমোক্রেসির (গণতন্ত্রের) একটা বিউটি (সৌন্দর্য) আছে। তারা অন্য দেশের অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে না।’ ‘অন্যান্য দেশ এ বিষয়ে খুব দৌড়াদৌড়ি করে। অনেক দেশ ছোটাছুটি করে। ইন্ডিয়া এইগুলো করে না।’

ভারত সফর নিয়ে কাদের বলেন, ‘এটি মূলত পার্টি টু পার্টি প্রোগ্রাম। এখানে তাদের সঙ্গে আমাদের বোঝাপড়া বাড়বে। স্বার্থ ছাড়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে না। তবে ইন্ডিয়া মোর দেন এ নেইভার (প্রতিবেশী)।’

ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগের এ প্রতিনিধি দলের সদস্য হচ্ছেন- দলটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পীযূষ কান্তি ভট্টাচার্য্য, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, অ্যাড. মো. মিজবাহউদ্দিন সিরাজ, আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিম, একেএম এনামুল হক শামীম, ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদ, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. আব্দুস সবুর, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক শ্রী সুজিত রায় নন্দী, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন ও নির্বাহী সদস্য মো. গোলাম কিবরিয়া রাব্বানী চিনু।

বাড়ি ভাড়া যৌন সেবার বিনিময়ে