ট্রান্সকমের চেয়ারম্যান লতিফুরকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

অবৈধ সম্পদ ও বিভিন্ন দেশে অর্থ পাচারসহ বেশকিছু অভিযোগে ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান ও সিইও লতিফুর রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বৃহস্পতিবার বিকালে তিনি সেগুনবাগিচায় কমিশনের প্রধান কার্যালয়ে হাজির হলে অনুসন্ধান কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক মো. নাসির উদ্দিন জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

এর আগে ১১ সেপ্টেম্বর দুদকের উপ-পরিচালক ও অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন এ নোটিশ দেন। এতে ১৮ অক্টোবর সকাল ১০টায় লতিফুর রহমানকে জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্টের সত্যায়িত কপিসহ দুদক কার্যালয়ে হাজির থাকতে বলা হয়।

দুদকের ওই নোটিশে বলা হয়, ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে গ্রুপভুক্ত বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠানের গ্যাস বিল, বিদ্যুৎ বিল ও ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে শত শত কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন, বিভিন্ন দেশে অর্থ পাচার এবং অবৈধ উপায়ে সরকারি জমি দখলে রাখার অভিযোগ রয়েছে।

ট্রান্সকম গ্রুপের প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে- ট্রান্সকম ফুড লিমিটেড, ট্রান্সকম ইলেকট্রনিক লিমিটেড, ট্রান্সকম কাস্টমার প্রডাক্টস লিমিটেড, বাংলাদেশ ল্যাম্পস লিমিটেড, মিডিয়া ওয়ার্ল্ড লিমিটেড, টি হোল্ডিং লিমিটেড, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড, ট্রান্স ক্র্যাফট লিমিটেড, বাংলাদেশ ইলেকট্রিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।