শুরু হয়েছে নবীন শিল্পীদের উচ্চাঙ্গসঙ্গীতের আসর ‘সুনাদ’

রাজধানীর ছায়ানট মিলনায়তনে সোমবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় শুরু হয়েছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন আয়োজিত উচ্চাঙ্গসংগীতের আসর ‘সুনাদ’। বাংলাদেশে উচ্চাঙ্গসঙ্গীতের প্রচার ও প্রসারের উদ্দেশ্যে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে নবীন ও প্রতিভাবান শিক্ষার্থীদের নিয়ে সংগঠিত হয়েছে বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়।

উপমহাদেশের গুণী সঙ্গীতগুরু এবং শিক্ষকদের দীক্ষা ও শিক্ষা গ্রহণ করে পরম্পরার শিক্ষার্থীদের মধ্যে সঙ্গীতের অনুকূল আবহ ও অনুরাগ তৈরি হয়েছে। এ সব শিক্ষার্থীর খেয়াল ও ধ্রুপদ পরিবেশন, সরোদ, সেতার, তবলা ও এসরাজ বাদন নিয়ে নিয়মিত আয়োজন ‘সুনাদ’-এর প্রথম অধিবেশন অনুষ্ঠিত হচ্ছে সোম ও মঙ্গলবার।

শিল্পীদের উত্তরীয় পরিয়ে দেয়ার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের সভাপতি আবুল খায়ের। তিনি বলেন, যে আশা নিয়ে আমরা বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসঙ্গীত উৎসব শুরু করেছিলাম তারই প্রতিফলন এই বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়, যা গত ৪ বছর ধরে চলছে। এরই মধ্যে আমাদের ২ জন শিক্ষার্থী ভারতে পরিবেশন করে এসেছে। আমরা আনন্দিত এবং আশা করছি এই ধারাবাহিকতা সামনে আরও ভালোভাবে অব্যাহত থাকবে। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী।

বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী ইশরা ফুলঝুরি খান, ইলহাম ফুলঝুরি খান, সাদ্দাম হোসেন এবং আরেফিন রনি দলীয় সরোদ বাদনের মাধ্যমে প্রথম পরিবেশনা করেন রাগ ভুপাল। তাদের সাথে তবলায় ছিলেন সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী সুপান্থ মজুমদার ও রতন কুমার দাস।

এরপর রাগ-শ্রী (খেয়াল) পরিবেশন করেন সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী মিরাজুল জান্নাত সোনিয়া, তবলায় ছিলেন সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী প্রশান্ত ভৌমিক, হারমোনিয়ামে আলমগীর পারভেজ সুমন এবং তানপুরায় ছিলেন সুপ্রিয়া দাস ও সুস্মিতা দেবনাথ।

তবলায় লহরা পরিবেশন করেন সুপান্থ মজুমদার। তার সাথে আলমগীর পারভেজ সুমন ছিলেন হারমোনিয়ামে। প্রথম দিনের সর্বশেষ পরিবেশন রাগ-বাগেশ্রী (খেয়াল) পরিবেশন করেন অতিথি শিল্পী অলোক সেন। তবলায় ছিলেন সবুজ আহমেদ আর হারমোনিয়ামে মোহাম্মদ শাকুর, তানপুরায় দীপচন্দ্র দাস ও ধ্রুব সরকার।

দ্বিতীয় দিনের আয়োজনে আজ যা থাকবে আজ মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় দ্বিতীয় দিনের মতো শুরু হবে ‘সুনাদ’ এর আসর। থাকছে দলীয় সেতার বাদন, খেয়াল ও ধ্রুপদ পরিবেশন এবং দলীয় এসরাজ বাদন। দলীয় সেতার বাদন পরিবেশন করবেন সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী প্রসেনজিৎ মণ্ডল, জ্যোতি ব্যানার্জি, জাহাঙ্গীর আলম শ্রাবণ, মোহাম্মদ কাওসার, সোহিনী মজুমদার, সামিন ইয়াসার ইফতি ও সুব্রত বিশ্বাস। তবলায় সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী প্রশান্ত ভৌমিক ও সুপান্থ মজুমদার।

খেয়াল পরিবেশন করবেন সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী কানিজ হুসনা আহম্মাদী। তবলায় থাকবেন সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী প্রশান্ত ভৌমিক, হারমোনিয়ামে আলমগীর পারভেজ সুমন। ধ্রুপদ পরিবেশন করবেন সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী অভিজিৎ কুণ্ডু ও টিংকু শীল। পাখোয়াজে থাকবেন আলমগীর পারভেজ সুমন

দলীয় এসরাজ বাদন পরিবেশন করবেন সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী সৈয়দা রায়হান, মো. রায়হানুল আমিন, রণজিত রায়, শুক্লা হালদার, ইসমাত আরা রুচি, শৌণক দেবনাথ ঋক, সৌমিত রায়, গৌরাঙ্গ কৃষ্ণ দাস ও এসরাজের শিক্ষাগুরু দেবাশীষ হালদার। তবলায় থাকবেন সংগীতালয়ের শিক্ষার্থী সুপান্থ মজুমদার।