উদ্ধারকর্মীকে তোতাপাখির গালাগালি

লন্ডনের অ্যাডমন্টন শহরে জেসি নামের এক পোষা তোতাপাখি তিন দিন ধরে তার মালিকের কাছে ফিরে না আসায় পাখিটির মালিক বেশ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন।

 

 

 

 

 

পরে প্রতিবেশির বাড়ির ছাদে দেখতে পেয়ে রয়াল সোসাইটি ফর দ্য প্রিভেনশান অব ক্রুয়েলট টু এনিম্যালস’ (আরএসপিসিএ) সহযোগিতায় লন্ডন দমকল বাহিনীর সদস্যদের পাখিটিকে উদ্ধার করার জন্য আবেদন জানান বলে মঙ্গলবারের যুক্তরাজ্যের বিবিসি সংবাদে প্রকাশ।

তোতাপাখিটিকে উদ্ধার করার জন্য উদ্ধার এটনিক হোরোজ নামের একজন কর্মী মইয়ে উঠে পাখিটিকে নিরাপদে নিচে নামিয়ে আনতে চেষ্টা করেন। কিন্তু পাখিটি নিচে নামতে নারাজ। বরং কর্মীটিকে গালমন্দ করে ছাদ থেকে উড়ে চলে যায়। গালাগালি শুনে কর্মীটি বেশ হতচকিত হন।

লন্ডন দমকল বাহিনীর ওয়াচ ম্যানেজার ক্রিস সোয়ালোর ভাষ্যমতে, মি. হোরোজকে বলা হয়েছিল, “আমি তোমাকে ভালোবাসি” বলে কাজ তোতাকে উদ্ধারের হাসিল করতে। এভাবে কম সময়ে পাখিটির সাথে সখ্যতা গড়া যাবে বলে তারা ধারণা ছিল। সেটি বলার পর পাখিটিও জবাবে আমি তোমাকে ভালোবসি বলে, কিন্তু পরক্ষণেই আবার গালাগালি শুরু করে।

পাখিটির এমন আচরণে উপস্থিত সব কর্মীরা কিছু সময়ের জন্য বাকরুদ্ধ হয়ে যান।

জেসি ইংরেজি ছাড়াও তুর্কি ও গ্রিক ভাষায় পারদর্শী ছিল। এই তিন ভাষায় বিভিন্ন ভাবে  দমকল কর্মীরা পাখিটিকে নিজেদের কাছে আনতে চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। সৌভাগ্যক্রমে জেসি কোনো ভাবে আঘাত পায় না এবং  পরে তাকে পাশের বাসার ছাদে আর এরপরে একটি গাছে  অবস্থান নিতে দেখা যায়।

সোমবার বিকেলে জেসি স্বেচ্ছায় তার মালিকের কাছে ফিরে যায়।

উদ্ধার করার জন্য যারা এসেছিলেন, জেসি ফেরার পর তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়ে জেসির মালিক একটি ভিডিও ক্লিপ পাঠান।