বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের দায়িত্বে ভারতের শ্যাম বেনেগাল

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী (বায়োপিক) নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের দায়িত্ব পাচ্ছেন ভারতের খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। তবে এই নির্মাণে বাংলাদেশের তিন সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি থাকবে।

সোমবার সচিবালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনভিক্তিক ছবি নির্মাণ বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের সময় তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এসব কথা জানান।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে চুক্তি অনুযায়ী এই চলচ্চিত্র পরিচালনায় বাংলাদেশের তিন সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেল তাকে সহযোগিতা করবে। পাণ্ডুলিপি তৈরির পর বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সদস্যদের দেখিয়ে নিয়ে মূল কাজ শুরু হবে।

তারানা হালিম বলেন, চলচ্চিত্রটি নির্মাণের জন্য ভারতের সঙ্গে করা চুক্তি অনুযায়ী দেশটি শ্যাম বেনেগাল, গৌতম ঘোষ ও কৌশিক গাঙ্গুলীর নাম প্রস্তাব করলে বাংলাদেশ শ্যাম বেনেগালকে বেছে নেয়।

এ বিষয়ে তারানা বলেন, তিনি (শ্যাম বেনেগাল) নেতাজী সুভাষ বোসকে নিয়ে জীবনীভিত্তিক চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন। তার কর্মের বিষয়টিকেই প্রাধান্য দিয়ে তাকে আমরা নির্বাচন করেছি। এই চলচ্চিত্র নির্মাণে বাংলাদেশের তিন সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ দল থাকবেন। যেখানে চলচ্চিত্র বিষয়ে বিশেষজ্ঞ, বঙ্গবন্ধুকে জানেন-চেনেন এমন একজন এবং ব্যক্তি বঙ্গবন্ধুকে চেনেন এমন একজন ইতিহাসবিদ থাকবেন। এরা পরিচালককে সহায়তা করবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং নরেন্দ্র মোদীর মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক সাক্ষরিত হয়েছিল দু’বছর আগে। সেখানে বঙ্গবন্ধুর ওপর যৌথভাবে চলচ্চিত্র এবং তথ্যচিত্র তৈরির কথা ছিল। চলচ্চিত্রটি নির্মাণের জন্য বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল জুলাই মাসে ভারত সফর করেন।

সাতবার ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার পাওয়া প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকর বেনেগাল নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন। তিনি পদ্ম ভূষণ, দাদা সাহেব ফালকে সম্মাননাতেও ভূষিত হয়েছেন।

তারানা হালিম বলেন, এখন চিত্রনাট্য তৈরি হবে, গবেষণা হবে। চলচ্চিত্রের নাম, চিত্রনাট্য অবশ্যই বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সদস্যরা দেখবেন। এর আগে বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্ট থেকে অনুমতি নিতে হবে।

এ চলচ্চিত্রে একজন পিতা, রাজনীতিবিদ, স্বাধীনতার ঘোষক এবং রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে বর্ণনা ফুটে উঠবে। এতে কারা অভিনয় করবেন- তা বাংলাদেশ এবং ভারতের পরিচালকরা ঠিক করবেন বলে জানান তারানা হালিম। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চলচ্চিত্র হলে তথ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সব রকমের সহযোগিতা দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক একটি চলচ্চিত্র এবং বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের উপর একটি প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণে ২০১৭ সালের ২৭ অাগস্ট নয়াদিল্লীতে বাংলাদেশ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রীদের উপস্থিতিতে একটি চুক্তি হয়। পরে বাংলাদেশের ১০ জন এবং ভারতের নয়জনকে নিয়ে একটি যৌথ কমিটি গঠন করা হয়। গত ৯ জুলাই ওই কমিটি নয়দিল্লীতে প্রথম সভা করে।